সিলেটে রায়হানের পরিবারের সাথে সর্বদলীয় নেতারা। ৭২ ঘন্টার আলটিমেটাম

রিয়েল সিলেটঃ সিলেটে নগরের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ‘পুলিশের নি’র্যা’তনে’ মারা যাওয়া রায়হান আহমদ হ’ত্যায় জড়িতদের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে গ্রে’প্তার না করা হলে হ’রতাল-সড়ক অ’বরোধসহ

বৃহত্তর আ’ন্দোলনের ডাক দেয়া হয়েছে। রোববার (১৮ অক্টোবর) সকালে নি’হত রায়হান আহমদের পরিবার ও বৃহত্তর আখালিয়া এলাকাবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

একই সাথে এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ৬ দফা দাবিও জানানো হয়। সংবাদ স’ম্মেলনে নি’হত রায়হানের মা সালমা বেগমের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রায়হানের মামাতো ভাই শওকত। দাবিগুলো হলোঃ ১. রায়হান হ’ত্যাকা’ণ্ডে

বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি। ২. রায়হান হ’ত্যায় জ’ড়িত পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) আকবর ভূঁইয়াসহ দো’ষীদের দ্রুত গ্রে’প্তার। ৩.প’লাতক এসআই আকবর ভূঁইয়াকে গ্রে’প্তারে আইজিপির নির্দেশ। ৪.পুলিশ কমিশনারের পক্ষ থেকে পু’র্ণাঙ্গ বক্তব্য।

৫.নি’হতের পরিবারকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ প্রদানে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন। ৬.৭২ ঘণ্টার মধ্যে জ’ড়িতদের গ্রে’প্তার না করলে হ’রতাল-সড়ক অ’বরোধসহ বৃহত্তর আ’ন্দোলন। প্রসঙ্গত, গত রোববার (১১ অক্টোবর) ভোর রাতে নগরীর আখালিয়ার নেহারিপাড়ার যুবক রায়হান আহমদকে

পুলিশ ফাঁড়িতে ধরে এনে নি’র্যা’তন করা হয়। এরপর ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃ’ত্যু হয়। এ ঘটনায় নি’হতের স্ত্রী বাদি হয়ে ১২ অক্টোবর কোতোয়ালি থানায় হ’ত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর আ’কবরসহ ৪ পুলিশকে ব’রখাস্ত ও ৩ জনকে প্র’ত্যাহার করা হয়।

১৩ অক্টোবর বিকেল থেকে আকবর প’লাতক রয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার রায়হানের ম’রদেহ ক’বর থেকে তুলে দ্বিতীবার ম’য়না ত’দন্ত করে পিবিআই। ওইদিনই শেষে বিকেলে আবার আখালিয়া নবাবী মসজিদ সংলগ্ন ক’বরস্থানে রায়হানের ম’রদেহ ফের দা’ফন করা হয়।

রি/সি/অ ৪৮৬৮৫