ডা’কাতদলে আওয়ামী লীগ নেতা, চেয়ারম্যান প্রার্থী!

রিয়েল সিলেটঃ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলায় ডা’কাতির প্রস্তুতিকালে ৩৬ জনকে গ্রে’প্তার করেছে পুলিশ। আ’টক ডা’কাতদলে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী,

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকও। রাজবাড়ী জেলা গোয়েন্দা শাখা ও পাংশা থানা পুলিশের সদস্যরা বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে তাঁদের গ্রে’প্তার করেন। গ্রে’প্তারকৃতদের কাছ থেকে আ’গ্নেয়াস্ত্র ও গু’লি উ’দ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রে’প্তারকৃতদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন- পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও কশবামাজাইল ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী জজ আলী বিশ্বাস, তাঁর ছেলে মতিন বিশ্বাস ও বদিয়ার বিশ্বাস, কশবামাজাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর পিল্টু।

জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি ওমর শরীফ ও পাংশা থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাতে পাংশার সুবর্ণকোলা গ্রামের একটি মেহগনি বাগানে একদল ডা’কাত ডা’কাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা শাখা ও পাংশা থানা পুলিশের

সদস্যরা সেখানে যৌথ অ’ভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় জজ আলী বিশ্বাস, তাঁর ছেলে মতিন বিশ্বাস ও বদিয়ার বিশ্বাস, মশিউর পিল্টুসহ ৩৬ জনকে গ্রে’প্তার করা হয়। গ্রে’প্তারকৃতদের কাছ থেকে আ’গ্নেয়াস্ত্র ও গু’লি উ’দ্ধার করা হয়েছে।

গ্রে’প্তারকৃতদের বেশির ভাগের বি’রুদ্ধে কশবামাজাইলের সুবর্ণকোলা গ্রামের শিক্ষক আসাদুল খান হ’ত্যা মা’মলা রয়েছে। বুধবার নতুন করে ডা’কাতির প্রস্তুতি এবং অ’স্ত্র আইনে তাঁদের বি’রুদ্ধে মা’মলা দায়ের করা হয়েছে।

রি/সি/অ ৪৫১৮৭