কক্সবাজারের এসপি মাসুদ সহ পুলিশের ৬ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বদলি

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) এ বি এম মাসুদ হোসেনসহ বাহিনীটির ছয় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। আজ বুধবার তাদের বদলি করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রজ্ঞাপনে দেওয়া আদেশ অবিলম্বে কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছে

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মাসুদ হোসেনকে কক্সবাজার থেকে রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আর কক্সবাজার জেলার এসপি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ঝিনাইদহ জেলার এসপি হাসানুজ্জামান। বদলি হওয়া অন্যান্যদের মধ্যে খুলনা

মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবিরকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার, পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মো. মাসুদুর রহমানকে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার, ডিএমপির উপ-কমিশনার (ডিসি) মুনতাসিরুল ইসলামকে ঝিনাইদহ জেলার এসপি এবং রাজশাহী জেলার এসপি মো. শহিদুল্লাহকে ডিএমপি সদরদপ্তরে ডিসি হিসেবে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন- মা ও ছেলেকে চমকে দিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। মাঠে গিয়ে তাদের সঙ্গে দেখা করেঃ রাজধানী ঢাকায় পল্টন এলাকার মাঠ। বোরকা পরিহিত এক মা ও সন্তান মিলে খেলছেন ক্রিকেট। বল ছুঁড়ছে ছোট্ট শিশু শেখ ইয়ামিন সিনান। আর ব্যাট হাতে বোরকা পরিহিত মা ঝর্ণা আক্তার। মা-ছেলের ক্রিকেট খেলার এমন অভাবনীয় দৃশ্য নজর কেড়েছে সবার। মুহূর্তেই ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ জাতীয় গণমাধ্যমগুলোতে।

জানা গেছে, আরামবাগের একটি মাদ্রাসার ছাত্র ইয়ামিন সিনান। পড়াশোনার পাশাপাশি কবি নজরুল ক্রিকেট একাডেমিতে অনুশীলন করে সে। তবে সেদিন তার সতীর্থ কিংবা কোচ নির্ধারিত সময়ে না পৌঁছানোয় মায়ের সঙ্গেই অনুশীলনে নেমে পড়েছিল ছোট্ট ইয়ামিন। তবে মা-ছেলের ক্রিকেট খেলার সেই ছবি নিয়ে হয়েছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। সন্তানের আবদার রক্ষা করে তাকে আনন্দ দেওয়ার জন্য বোরকা পরা অবস্থায়ও ক্রিকেট খেলেছেন বলে সব সমালোচনাকে উড়িয়ে দিয়েছেন মা ঝর্ণা আক্তার।

এবার সেই মা-ছেলেকে চমকে দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। মাঠে গিয়ে তাদের সঙ্গে দেখা করেছেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাত ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। শুধু তাই নয়, ছোট্ট শেখ ইয়ামিন সিনানকে ক্রিকেট খেলার সামগ্রী উপহার দিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। উপহার হিসেবে তাকে ব্যাট, জার্সি ও হ্যান্ড গ্লাভস দেন উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিক। এসময় উপহার সামগ্রী ছাড়াও সিনানকে অটোগ্রাফ দেন। পরে মা ও ছেলের সঙ্গে ছবিও তোলেন তিনি। বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মা ঝর্ণা বেগম এবং ছেলে সিনানের সঙ্গে দেখা করতে যান মুশফিক। এ সময় ছোট্ট সিনানের পাশে থেকে ভবিষ্যতে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।