এই ৯ কারণে আপনাকেও গ্রেফতার করা হতে পারে

কোনা ব্যাক্তির বি’রুদ্ধে যদি গ্রে’ফতারের আদেশ না হয় তাহলে কি সেই ব্যাক্তিকে গ্রে’ফতার করা যাবে? এ বিষয়ে আমরা অনেকেই জানি না। সাধারাণত আমরা মনে করে থাকি ব্যক্তির বি’রুদ্ধে গ্রে’ফতারের আদেশ ছাড়া ওই ব্যক্তিকে গ্রে’ফতার করা যায় না।

এই ধারণা ভুল। পুলিশ কোন ব্যক্তিকে পরোয়ানা ছাড়াও গ্রে’ফতার করতে পারে। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সাইফুর রহমান বিনা পরোয়ানায় গ্রে’ফতারের বিষয়ে একটি সংবাদমাধ্যমে লেখেন, পুলিশ কোন ব্যক্তিকে পরোয়ানা ছাড়া গ্রে’ফতার করতে পারে। তবে এক্ষেত্রে

আমলযোগ্য অ’পরাধ ছাড়া কোন ব্যক্তিকে গ্রে’ফতার করা যাবে না। আর যদি আমলযোগ্য অ’পরাধ হয়ে থাকে তাহলে গ্রে’ফতার করা যাবে। পুলিশ যেকোনো ব্যক্তিকে আমলযোগ্য অ’পরাধের ক্ষেত্রে ৫৪ ধারার অধীনে গ্রে’ফতার করতে পারবে। অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে, ৫৪ ধারার ক্ষমতা ছাড়া পুলিশ কেন বিনা পরোয়ানা কোন

ব্যক্তিকে গ্রে’ফতার করবে? মনে রাখা উচিৎ যদি কেউ আমলযোগ্য অ’পরাধ করে থাকে অথবা জড়িত থাকে তবে তাকে গ্রে’ফতার করা যায়। ৫৪ ধারার অধীনে ৯ ধরণের অ’পরাধে পুলিশ গ্রে’ফতার করতে পারে। আদালতের আদেশ ছাড়া এই ৯ ধরণের অপরাধীকে গ্রেফতার করতে পারে পুলিশ। আসুন জেনে নেই বিনা পরোয়ানায় যে নয় ধরনের অ’পরাধের ক্ষেত্রে

গ্রে’ফতার করা যায়- ১. সরকার কাউকে অ’পরাধী বলে ঘোষণা করলে। এছাড়া কোনো ব্যক্তি রাষ্ট্রের জন্য ক্ষতিকারক কোনো কাজ করলে। ২. আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাজে বাধাদান বা আইনগত হেফাজত থেকে পলায়নকারী ব্যক্তি। ৩. আমলযোগ্য অ’পরাধ যদি কেউ করে থাকে অথবা তাতে জড়িত থাকার অ’ভিযোগে পুলিশ গ্রে’ফতার করতে পারবে। ৪. বিদেশে কোনো অ’পরাধে অ’ভিযুক্ত ব্যক্তি, যদি অ’পরাধটি বাংলাদেশে করলে অ’পরাধ

হয়ে থাকে। ৫. কারও কাছে ঘর ভা’ঙার সরঞ্জামাদি থাকলে সেই ব্যক্তিকে পুলিশ বিনা পরোয়ারায় গ্রে’ফতার করতে পারবে। ৬. মা’দকদ্রব্য, অ’বৈধ অ’স্ত্র ও মু’দ্রা বহন করলে। ৭. যে কোনো থানা থেকে আ’সামি গ্রে’ফতারের অনুরোধ পাওয়া গেলে। ৮. স’শস্ত্রবাহিনী থেকে প’লায়নকারী ব্যক্তি। ৯. কা’রামুক্তিপ্রাপ্ত আ’সামি যদি একই অ’পরাধ আবার করে। এছাড়া ধারা ৫৫, ৫৬, ৫৭ ও ৫৯ ধারায় বিনা পরোয়ানায় গ্রে’ফতারের বিধান রয়েছে।