হঠাৎ শাবানা বললেন ‘ভ’য়ের কিছু নেই’

বৃহস্পতিবার মধ্যরাত পেরিয়ে ঘড়ির কাঁটা তখন প্রায় ১টার ঘরে। আমেরিকা থেকে মোবাইলে কল এলো। অপর প্রান্তে ঢালিউডের বিউটিকুইন খ্যাত জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাবানা।

জানতে চাইলেন দেশের করোনা পরিস্থিতির খবর।বললেন, শুনেছি ঢাকায় মানুষ বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। আরও বললেন, সেপ্টেম্বরে দেশে আসতে চেয়েছিলাম। আর ক’টা দিন যাক, পরিস্থিতির কতটা উন্নতি হয় দেখি। শাবানা এখন নিউজার্সিতে আছেন।

জানালেন সেখানকার করোনা অবস্থার বেশ উন্নতি হয়েছে। করোনার কারণে প্রায় ৪ মাস বাসা থেকে এক মুহূর্তের জন্যও বের হননি তিনি। বিউটিকুইন বলেন, আশার কথা ইতিমধ্যে এ ম’হামারীর ভ্যাকসিন বাজারে আসার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে।

তাই ভ’য়ের কিছু নেই। এখন শুধু স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চললেই হলো। তিনি বলেন, এ দুর্যোগে তার প্রিয় চলচ্চিত্র অঙ্গন ও দেশের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে মন কাঁদে তার। কিন্তু ফ্লাইট বন্ধ থাকায় সেই সুযোগ হয়ে ওঠেনি।

তবে শিগগিরই দেশে ফিরবেন এবং সবার কল্যাণে কাজ করবেন। শাবানা বলেন, করোনাকালে ঘরের যাবতীয় কাজকর্ম, নামাজ, দোয়া ও রোজা পালনের মধ্য দিয়ে সময় কাটছে তার। এ জনপ্রিয় অভিনেত্রীর স্বামী বিশিষ্ট চলচ্চিত্র প্রযোজক ওয়াহিদ সাদিক বলেন,

শুনেছি চলচ্চিত্রাঙ্গনে ‘বয়কট’সহ নানা অস্থিরতা বিরাজ করছে? তিনি বলেন, আসলে এ জগৎটি এখন অভিভাবকশূন্য হয়ে পড়েছে। তাই কেউ কাউকে আর মানতে চাইছে না। এসব বাদ দিয়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে মৃতপ্রায় এ শিল্পটিকে আবার জাগিয়ে তোলার অনুরোধ জানান তিনি। কথায় কথায় এখানে রাত বাড়ে

আমেরিকায় তখন বিকাল সাড়ে ৩টা। আবারও দেশের মানুষের জন্য অভয়ের বাণী দিয়ে একসময় কথা শেষ করেন বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি শাবানা-সাদিক।