সিলেট নগরীতে প্রবাসীর জায়গায় ক্যারাম খেলা নিয়ে আ.লীগ নেতার গু’লি- উত্তেজনা

সিলেট নগরীতে পূর্ব বি’রোধ ও ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে গু’লি ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে গু’লিবিদ্ধ হয়েছেন ফাহিম আহমদ (১৪) নামের এক কিশোর। শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর ফাজিলচিস্ত এলাকায় ৭নং ওয়ার্ড

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সায়েক খানের প্রকাশ্যে গু’লিবর্ষণ শুরু হলে গু’লিবিদ্ধ হন ফাহিম। খবর পেয়ে এসএমপির দুই থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নি’য়ন্ত্রণে আনে। তবে উভয় পক্ষে উ’ত্তেজনা বিরাজ করায় ঘটনাস্থলে পুলিশ

সদস্য মোতায়েন রয়েছে। সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিয়া ও বিমাবন্দর থানার ওসি শাহাদৎ হোসেন জানান, ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এ সময় গু’লি বর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফতাব হোসেন খানের দাবি, অ’পরাধ নি’য়ন্ত্রণে এলাকার যুব সমাজ বা’ধা দিলে সায়েক খান তাদের ওপর গু’লি করেন। এতে ফাহিম নামে এক কি’শোর গু’লিবিদ্ধসহ অনেকেই আ’হত হন। আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সাংগঠনিক সম্পাদক

অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজের ছেলেকেও হ’ত্যার উদ্দেশ্যে গু’লি করেন সায়েক। এ সংক্রান্ত সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও আছে। এদিকে, ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহের অ’পচেষ্টা চলছে। সং’ঘবদ্ধ স’ন্ত্রাসীরা হা’মলা চালিয়ে সায়েককে আ’হত ও তার গাড়ি ভা’ঙচুর করে। আ’ত্মরক্ষার্থে তিনি গু’লি ছুড়তে বা’ধ্য হন।

সায়েক খান জানান একজন প্রবাসীর জায়গায় এলাকার কিছু যুবক ছাউনি বানিয়ে নিয়মিত আড্ডা দিতো। ঐ প্রবাসীর ছেলে গিয়ে কলোনির অবস্থা দেখে কেয়ারটেকারকে নি’ষেধ দিতে বলার কারনে কেয়ারটেকার নি’ষেধ দেন।

তারা আজ শুক্রবার পর্যন্ত সময় চেয়ে আজকে যুবকেরা সেই খেলার ঘরটি সরিয়ে নিয়ে যায় ঐ কেয়ারটেকারের বাসায় তালা মেরে দেয়। সেই খবর পেয়ে তিনির ভাই ভাতিজা নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন আসার পর বিষয়টি জানার চেষ্টা করলে মিছবা উদ্দিন সিরাজের বাসা থেকে ২জন ও চারিদিক থেকে ২০/২৫ এসে হামলা শুরু করে তাদের উপর তিনির গাড়ি ভাংচুর করে তখন নিজে বাচার জন্য লাইসেন্সধারি বন্দুক দিয়ে উপর দিকে গুলি করে আত্মরক্ষা করে বেছে আসেন, ঐ প্রবাসীর কেয়ারটেকার তিনির নিজেরও কেয়ারটেকার গত কয়েক বছর থেকে সেই কারনেই বাসা তালা মারার কারনে গিয়েছেন।