ছয় বছর পর সাকিবের সেই ‘অশালীন’ অঙ্গভঙ্গির রহস্য উন্মোচন করলেন শফিউল

আন্তর্জাতিক ম্যাচে ড্রেসিং রুমে বসে ক্যামেরা দেখে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করে তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা এবং তিন লাখ টাকা জরিমানার শিকার হতে হয় সাকিব আল হাসানকে।

২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই ঘটনাটি ঘটান বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক। কী হয়েছিল সেদিন?

ঘটনার প্রায় ছয় বছর এক ফেসবুক লাইভ আড্ডায় ওই সময় ড্রেসিং রুমে সাকিবের পাশে বসা শফিউল ইসলাম জানালেন আসল ঘটনা।

এই পেসারের মতে মজা করতে গিয়ে সাকিব এটা অজান্তেই ঘটিয়েছেন। তার কোনো দোষও দেখছেন না শফিউল। শফিউল বলেন,

‘আসলে ওই ম্যাচটা খুব ক্লোজ ছিল আমাদের জন্য। ওইসময় সাকিব ভাই ক্রুশিয়াল মোমেন্টে আউট হয়ে খুব উত্তেজিত ছিল। ফ্রেশরুম থেকে ফ্রেশ হয়ে টাওয়েল পড়েই চলে আসছিল ড্রেসিংরুমে।

আসলে উনিও বুঝে নাই। ক্যামেরাটা যখন ধরসে তখন উনি বলেছিলেন ক্যামেরা সড়াতে। তখন মনের অজান্তেই ওইরকম করে বসেছিলেন হয়তো।’

টিভি ধারাভাষ্যকাররা সাকিবের আউটের বর্ণনা দেওয়ার সময় ক্যামেরা ড্রেসিং রুমের দিকে ঘুরিয়ে সাকিবের দিকে তাক করলেই ঘটনাটি ঘটেছ। কয়েক সেকেন্ড পরে, যখন তার আউটের রিপ্লে প্রচারিত হয়েছিল, সাকিব তখন বিভিন্ন বিকৃত অঙ্গভঙ্গি করেন।

শফিউল বলেন, ‘আসলে ড্রেসিংরুমে তো অনেক কথাই হয়। কথা বলতে বলতে আমি হাসছিলাম। ওইসময় ফানি কথা হচ্ছিল। আমিও হেসে দিয়েছিলাম। তো পরে আমাকেও ডাকা হয়েছিল জিজ্ঞেস করেছিল ওখানে কি হয়েছিল। আমি তখন বলেছি আসলে অনেক ধরনের কথা তো হয় আর সাকিব ভাই ওইরকম কিছু বলেনি। যখন সাকিব ভাই আউট হয়ে আসছে তখন তার মনটা হয়তো খারাপ ছিল। নিজের অজান্তেই এত কিছু হয়ে যাবে আসলে কেউ সেটা ভাবে নাই।’