হাসপাতালে অ’পারেশন থি’য়েটারে নবজাতককে কা’মড়ে খেল কুকুর!

রিয়েল সিলেটঃ বাবা হওয়ার সাধ পূর্ণ হল না। তার আগেই এক নিমেষে শেষ হল সবকিছু। চিকিৎসা কিংবা চিকিৎসকের গাফিলতিতে রো’গী মৃ’ত্যু নতুন কোনও ঘটনা নয়। কিন্তু তাই বলে এইরকম ঘটনা।

যা শুনলে গায়ে কাঁ’টা দিয়ে উঠবে যে কারও। ঘটনাটা এই রকম, হাসপাতালের অ’পারেশন থি’য়েটরের মধ্যে কুকুরে খু’বলে খে’ল সদ্যজাতকে। সোমবার ১৩ জানুয়ারি সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ আবাস বিকা কলোনির আকাশ গ’ঙ্গা হাসপাতালে ঘটে এই ম’র্মান্তিক ঘটনা।

ঘটনা ছড়িয়ে পড়তেই উ’ত্তাল গোটা পশ্চিমবঙ্গ। পাশাপাশি চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে এলাকায়। ডে’লিভারির ব্য’থা ওঠায় কাঞ্চনকে নিয়ে হাসপাতালে যান রবি। রবি জানিয়েছে, প্রথমে হাসপাতালের নার্সিং স্টাফরা বলেন নরমাল ডে’লিভারি হবে। তবে কয়েক মুহূর্ত পরই ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে তারা জানান, সি’জার করতে হবে।

সেইজন্য কা’ঞ্চনকে অ’পারেশন থি’য়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়। এক ঘণ্টা পর তারা জানান অ’স্ত্রোপ’চার সফল হয়েছে। তারা কাঞ্চনকে ওয়ার্ডে দিয়ে দিলেও বাচ্চাটি অ’পারেশন থি’য়েটারেই রেখে রবিকে বাইরে অপেক্ষা করতে বলেন। প্রথমবার বাবা হওয়া রবি কাঁ’দতে কাঁ’দতে আরও জানালেন, কয়েক মিনিট পর হাসপাতালের এক কর্মী চি’ত্‍‌কার করে বলতে থাকে, অ’পারেশন থি’য়েটারে কুকুর ঢুকেছে।

বি’পদ আঁ’চ করে আমি ওটির দিকে ছু’টে গিয়ে দেখি আমার সন্তান র’ক্তাক্ত অ’বস্থায় মেঝেতে পড়ে রয়েছে। বা’চ্চাটার বু’কে ও বাঁ চো’খে কুকুরের কা’মড়ের দা’গ ছিল। ও স্থি’র হয়ে পড়ে ছিল। ন’ড়াচড়া করছিল না। কুকুরটি আবার অ’পারেশন থি’য়েটারে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করলে আমি চিত্‍‌কার করে উঠি। রবি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বি’রুদ্ধে গা’ফিলতির অ’ভিযোগ আনায় তারা টাকা দিয়ে তাকে চু’প করিয়ে দিতে চেয়েছিল বলে অ’ভিযোগ উঠেছে।

তারা দাবি করে, বাচ্চাটি মৃ’ত অ’বস্থাতেই ছিল। আর কুকুরটি ভুলবশত ওটিতে ঢুকে পড়েছিল। জেলা প্রশাসক মহেন্দ্র সিং জানিয়েছেন, আমরা ত’দন্ত করেছি। হাসপাতালের গা’ফিলতির জন্যই শিশুটির মৃ’ত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে ত’দন্ত শুরু করেছে কমিটি। হাসপাতালের মালিক বিজয় প্যাটেল ও তার কর্মীদের বি’রুদ্ধে এ’ফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। আপাতত হাসপাতালটি বন্ধ রাখা হয়েছে।