হুট করেই ফেসবুক থেকে রিমুভ হয়ে যাচ্ছে জনপ্রিয় যত ফেসবুক গ্রুপ !লাখ লাখ মেম্বারের গ্রুপ এবং গ্রুপের অ্যাডমিন প্যানেলের ফেসবুক আইডি, কোনোটাই টিকছেনা। সবই বাদ হয়ে যাচ্ছে কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড ভায়োলেশনে।যে কোন ক্যাটাগরির গ্রুপ ই হোক এই সমস্যা হয়েছে এই পর্যন্ত কত সংখা তা কেউ বলতে পারবেনা,এবার আসি কেন হচ্ছে বাচার উপায়,

যদিও এই পর্যন্ত বেশির ভাগ গ্রুপ ই নাই হয়ে গেছে তারপর ও যাদের আছে তা বাছিয়ে রাখুন,এসব গ্রুপের এক্টিভিটিগুলো খেয়াল করলেই বুঝা যায়, ফেসবুকের গাইডলাইন ভঙ্গ করে, এমন কোনো কন্টেন্টস সেখানে ছিলো না বা গ্রুপ এডমিনরা ও জানেন নিজেদের গ্রুপ সম্পকে। তবুও কেনো গ্রুপগুলো হারিয়ে গেলো?

গতকাল রাত থেকেই এ সমস্যাটির কারণ অনুসন্ধান করে আমাদের টিম বিশেষ কিছু তথ্য জানতে পারে। যদিও আমরা সেটি যাচাই বা পরীক্ষা করে দেখিনি। তবে বিভিন্ন তথাকথিত দেশি-বিদেশি স্প্যামারদের ওয়াল ঘেটে এ বিষয়ে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। চলুন জেনে নেয়া যাক, কিভাবে নষ্ট করে দেয়া হচ্ছে ফেসবুক গ্রুপ,এবং সেলিব্রেটিদের লাখ লাখ ফলোয়ারের ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি।গ্রুপের সাথে এড দেয়া পেইজ ও গেছে অনেকের।

ফেসবুকের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড গাইডলাইনে স্পষ্টভাবে বলা আছে, এই ওয়েবসাইটে কোনোপ্রকার টেরোরিজম বা জঙ্গিবাদ সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম চালানো যাবেনা। অর্থাৎ ইন্টারন্যাশনাল টেরোরিস্ট হিসেবে চিহ্নিত যে কারো সম্পর্কে কোনো পোস্ট করলে বা ছবি আপলোড করলে তা কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড ভায়োলেশন হিসেবে ধরা হবে। এবং রিপোর্ট করা মাত্রই উক্ত কন্টেন্ট সহ এন্টায়ার গ্রুপ/পেজটিই রিমুভড হয়ে যাবে।গ্রুপ ডিসেবল মাত্র ১মিনিটের মধ্যে করে দিচ্ছে এই পদ্ধতিতে।

ফেইসবুকের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড ভায়োলেশন এইটা সফটঅয়ারে নিয়ন্ত্রন করে তাই কমেন্টে এইসব ছবি দিয়েই রিপোর্টের সাথে সাথে চলে যাচ্ছে গ্রুপ, আপাতত যা করবেন গ্রুপ আরসিভ করে বন্ধ রাখুন যতক্ষন পর্যন্ত ফেইবুকের এই বিষয়টি নজরে না আসে, গ্রুপের লিংক সেইভ করে রাখুন,যাদের গ্রুপ ইতিমধ্যে চলে গেছে আপনারা অপেক্ষায় থাকুন ফেইসবুকের আপডেট পরজন্ত।আর আপিলের জন্য লিংক রাখুন।