মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার নিজবাহাদুরপুর ইউনিয়নের ইটাউরী-দৌলতপুর বাজার সড়কের মাঝে একটি বিদ্যুতের খুঁটি থাকায় চলাচল করতে গিয়ে প্রায় প্রতিদিনই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন স্থানীয় চালক ও বাসিন্দারা। রাস্তাটি পাকা করার ৮ বছর পেরিয়ে গেলেও সরানো হয়নি খুঁটিটি। খুঁটিটি স্থানান্তরের জন্য সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার এলাকাবাসী মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুত্ সমিতির বড়লেখা জোনাল অফিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) বরাবরে লিখিতভাবে আবেদন দিয়েছেন।

আবেদন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নিজবাহাদুরপুর ইউনিয়নের ইটাউরী-দৌলতপুর বাজার রাস্তার ওপর প্রায় এক যুগ আগে একটি খুঁটি স্থাপন করা হয়। এর প্রায় ৮ বছর পর রাস্তাটিতে খুঁটি রেখেই পাকাকরণ করা হয়। খুঁটি না সরিয়ে নেওয়ায় রাস্তা দিয়ে যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। রাতের অন্ধকারে খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা লেগে ঘটছে দুর্ঘটনা। দুর্ঘটনায় আহত হচ্ছেন রাস্তা ব্যবহারকারী মানুষজন। ইটাউরি গ্রামের বাসিন্দা জাকির হোসেন বলেন, ‘রাস্তাটি পাকা করার সময় খুঁটি সরানোর কথা বলা হয়। কিন্তু বিদ্যুত্ বিভাগ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। খুঁটিটি এখন পথের বাধা হয়েছে। খুঁটির কারণে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। স্থানান্তরের জন্য লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাজু আহমদ বলেন, ‘রাস্তাটি দিয়ে অন্তত ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ চলাচল করেন। রাস্তাটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দীর্ঘদিন থেকে খুুঁটির কারণে ঘটছে দুর্ঘটনা। কিন্তু কর্তৃপক্ষের এটি সরানোর কোনো উদ্যোগ নেই। এলাকাবাসী এটি সরানোর জন্য লিখিতভাবে আবেদন দিয়েছেন। রাস্তা থেকে খুঁটিটি দ্রুত সরানো প্রয়োজন।’

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুত্ সমিতির বড়লেখা জোনাল অফিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) সুজিত কুমার বিশ্বাস শনিবার বলেন, ‘এলাকাবাসীর আবেদন পেয়েছি। একজন কর্মকর্তাকে সরেজমিনে খুঁটিটির অবস্থান দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। খুঁটিটি কি অবস্থায় আছে তিনি জানালেই আমরা ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাব।’