নিউজিল্যান্ডের পর এবার অস্ট্রেলিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের কুইন্সল্যান্ড প্রদেশের বায়তুল মাসরুর নামের একটি মসজিদে গাড়ি হামলা চালিয়েছে এক মাদকাসক্ত তরুণ।

শনিবার (১৬ মার্চ) মসজিদে মুসল্লিদের নামাজের সময় গাড়ি নিয়ে মসজিদের দরজায় আঘাত হানে লোগান সিটির ব্রাউন প্লেইনসের ওই তরুণ বাসিন্দা। এ সময় মসজিদে থাকা মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে অশ্রাব্য ভাষায় গালি-গালাজও করতে থাকে সে।

জানা যায়, মাদকাসক্ত অবস্থায় গাড়ি চালানোর সন্দেহে গ্রেফতারের পর শনিবার বিকালে ওই তরুণের ড্রাগ টেস্ট করা হয়। এতে তার শরীরে মাদকের উপস্থিতি পাওয়া যায়। এর ফলে প্রাথমিকভাবে তার গাড়ি চালানোর লাইসেন্স ২৪ ঘণ্টার জন্য স্থগিত করা হয় এবং মাদকাসক্ত অবস্থায় গাড়ি চালানোর অপরাধে তাকে আদালতে হাজির করার নির্দেশও দেওয়া হয়। পরে পুলিশি হেফাজত থেকে মুক্তি পেয়েই ওই তরুণ গাড়ি নিয়ে বায়তুল মাসরুর মসজিদের দরজায় আঘাত হানে।

 

 

 

 

কুইন্সল্যান্ড পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নেভিলে স্ট্রিটের পাশে গাড়ি চালানোর পর স্থানীয় বায়তুল মাসরুর মসজিদের প্রবেশদ্বারে গাড়ি চালিয়ে আঘাত হানে ওই তরুণ। এতে মসজিদের প্রবেশ দরজার সামান্য ক্ষতি হয়। এ সময় মসজিদে উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে গালি-গালাজও করে সে। পরে ওই গাড়ি নিয়ে বাসায় ফিরে যার মসজিদে হামলা করা ২৩ বছর বয়সী ওই তরুণ। রাতেই তাকে নিজ বাড়ি গ্রেফতার করে স্থানীয় পুলিশ। ইচ্ছাকৃতভাবে সম্পদ ধ্বংস, জন-অশান্তি সৃষ্টি ও লাইসেন্সের স্থগিত উপেক্ষা করে গাড়ি চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে।

এর আগে গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুইটি মসজিদে জুম্মার নামাজের সময় অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত এক শেতাঙ্গ জঙ্গী বন্দুক হামলা চালায়। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫০ জনে। এছাড়া আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও অন্তত ৫০ জন।