হাসিব খানের বয়স মাত্র তের বছর। মেধাবী এই শিক্ষার্থী মরণব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছে।

সে মঠবাড়িয়া কে এম লতীফ ইনস্টিটিউশনের ৮ম শ্রেণির ছাত্র। গত ৮ মাস ধরে সে বিদ্যালয়ে আসতে পারছে না। অসুস্থ হাসিবের জন্য  সবার সহযোগিতা দরকার।

গত বছর জুলাই মাসে হাসিব অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসকরা জানান, হাসিব দুরারোগ্য ক্লাসিক্যাল ফিক্স লিমফোমা ক্যান্সারে আক্রান্ত। পরে তাকে ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে বর্তমানে ঢাকায় বাংলাদেশ স্পেশালিস্ট হসপিটালের ডাঃ তওফিকের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছে।

 

ইতিমধ্যে হাসিবের কেমোথেরাপি শুরু হয়েছে। হাসিবের বাবা আব্দুল করিম খান বড় মাছুয়া হাই ইনস্টিটিউশনের সহকারী শিক্ষক ও মা গৃহিনী। তারা সন্তানের চিকিৎসার ব্যায় মেটাতে ইতিমধ্যে প্রায় চব্বিশ লাখ টাকা খরচ করে সর্বস্বান্ত। চিকিৎসকরা বলছেন, হাসিবের রেডিওথেরাপি ও পুনঃ কেমোথেরাপি প্রয়োজন। এতে আরও প্রায় বিশ লাখ টাকা খরচ হবে। যা তার বাবার পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়।

হাসিবের চিকিৎসার জন্য বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সাহায্যের আবেদন করা হয়েছে। সাহায্য পাঠাবার ঠিকানা- সঞ্চয়ী হিসাব নম্বার-১১১০০১১৪০২৯ উত্তরা ব্যাংক লিমিটেড, মঠবাড়িয়া শাখা, পিরোজপুর। বিকাশ নাম্বার-০১৭১৬-৫২৭৬৯৩, ০১৭৭৯-৪৪১১৯৬, ০১৭১৬-৮৮৭২৭৮।