ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন কে পাকিস্তান থেকে ভারতীয় বাহিনীর কাছে হস্তান্তরর করা হয়েছে।

ভারত-পাকিস্তানের ওয়াগা-আতারি সীমান্ত দিয়ে অভিনন্দনকে ভারতের হাতে তুলে দেয় পাকিস্তান আজ শুক্রবার । গতকাল পাকিস্তানি আর্মির ফেইসবুক পেইজে পাইলটের ছোট ছেলে বানি কে উদ্দেশ্য করে লিখা পোস্টটি সারা বিশ্বের নজর কেড়েছে সেই স্টেটাসের বাংলা একটু পড়ে নিন।

ভারতীয় পাইলটকে ফেরত পাঠানোর সময় পাকিস্তান থেকে তার কিশোর ছেলেকে লেখা সেই ভাইরাল হওয়া খোলা চিঠি এই ছোট বানি
অভিনন্দন তোমাকে। বাবাকে খুব শিগগিরই জড়িয়ে ধরতে পারবে। আমরা তোমার কাছে তাকে উপহার হিসেবে পাঠাচ্ছি। তিনি তোমার মতো কতজনকে যে বোমা দিয়ে মেরে ফেলতে এখানে এসেছিলেন, সেগুলো আমরা বিবেচনা করছি না

বানি শোনো তোমার কাছে আমার একটি অনুরোধ আছে। তিনি যখন তোমার কাছে ছুটে গিয়ে তোমাকে শক্তভাবে জড়িয়ে ধরবে, দয়া করে আমার পক্ষ থেকে কয়েকটি প্রশ্ন করো আচ্ছা বাবা? কাশ্মিরি শিশুদেরকে কি আমার মতো তাদের বাবাদের সাথে সুখে থাকার অধিকার নেই? তাকে জিজ্ঞাসা করো, তারা যদি দাঙ্গাবাজ লোকদের দয়ার ওপর তোমাকে ছেড়ে দিত, তবে কী হতো?

তার কাছে জানতে চেয়ো, যুদ্ধ আর ঘৃণার মূল্য কত? তাকে জিজ্ঞেস করো, বেশি শক্তিশালী কোনটি : ঘৃণা না ভালোবাসা? তার কাছে জানতে চেয়ো, কোনটা বেশি সুন্দর : জীবন না মৃত্যু?

আমি অবশ্যই তোমাকে এসব প্রশ্নের জবাব দেব। সুখে থাকো ছোট্ট বানি। আমি আশা করি, তুমি একদিন ক্ষেপণাস্ত্র আর বোমার বদলে হাতে ফুল নিয়ে বাবার সাথে আমাদের দেশে আসবে। আর একটি কথা : আমি তোমাকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, আমরা কাউকেই কোনোভাবেই তোমার হাসি কেড়ে নিতে দেব না, আমাদের ভূমিকে ধ্বংস করতে দেব না। বাবার সাথে সুখে থাকো।