ইউটিউবের মাধ্যমে নোংরা, মিথ্যা ও অর্ধসত্য কথা ছড়ানো হচ্ছে। এসব থেকে তরুণ সমাজকে সতর্ক থাকার পরাম’র্শ দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। আজ ২৩ আগস্ট শুক্রবার পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজার সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ মিলনায়তনে শোকদিবসের আলোচনা সভায় মন্ত্রী এ পরাম’র্শ দেন।

এ সময় সঙ্গীতশিল্পী নোবেল প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে বসে দেশের জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে নেতিবাচক কথা বলা হচ্ছে। এক ছোকরা কি যেন তার নাম নোবেল। সে মূর্খের মতো জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে কথা বলে ইউটিউবে। নোবেলের প্রতি আমা’র স্নেহ ছিল।

ছেলেটা ভালো গান করে। দোয়া ও আশীর্বাদ করি বড় হও। কিন্তু জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে কথা বলার তুমি কে? জাতি সম্বন্ধে তোমা’র এমন মন্তব্য করা উচিত হয়নি। জাতীয় সঙ্গীত সঠিক নয় নোবেল কেন ইউটিউবে বললো। তাই তরুণ সমাজকে বলি ইউটিউবে থেকে সাবধান।’

এ সময় ইউটিউব প্রসঙ্গে এমএ মান্নান বলেন, ‘তরুণ সমাজকে নিয়ে একটি কথা বলতে চাই। এখন সব সময় তরুণদের হাতে থাকে স্মা’র্টফোন। এর মধ্যে আবার ইউটিউব আছে। এই ইউটিউবে নোংরা, মিথ্যা ও অর্ধসত্য কথা ছড়ানো হচ্ছে। তরুণ সমাজকে এই মিথ্যা ছড়ানো ইউটিউব থেকে দূরে থাকতে হবে।

শুধু বিদেশে নয়, দেশে বসেও ইউটিউবে দেশ ও সাংস্কৃতি নিয়ে নানা মিথ্যা ছড়ানো হচ্ছে।’ এ সময় বঙ্গবন্ধুর অবদান তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘সময় নিয়ে এক জীবনে বঙ্গবন্ধুর অবদান বলে শেষ করা যাবে না। বঙ্গবন্ধুর ঋণ আম’রা কোনোদিন শোধ করতে পারবো না। বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীন দেশ দিয়েছেন। আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্ষুধামুক্ত সোনার বাংলা গড়তে হবে।