সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে চুরি করে বিক্রি করে দেওয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার তিন বছরের শিশুসন্তান রাফসানকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, গত বুধবার জামালগঞ্জের লক্ষ্মীপুর গ্রামের জোবেদা বেগম সদরের সরদারপুর পয়েন্টে দুটি শিশুসন্তান নিয়ে আসেন। এ সময় নিজের সন্তান পরিচয় দিয়ে টাকার বিনিময়ে তাদের পালক দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন। পরে সরদারপুর গ্রামের জসিম উদ্দিনের সৎমা তাঁর নিঃসন্তান ভাই কবির মিয়ার জন্য সাত হাজার টাকায় এক শিশুকে কিনে নেন।

গতকাল দুপুরে এ ঘটনা জানতে পেরে ওই শিশুর বাবা লক্ষ্মীপুর গ্রামের অনু মিয়া, ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদ মাহমুদ তালুকদারসহ কয়েকজন রামনগর গ্রামে যান। তাঁরা কবির মিয়ার কাছ থেকে শিশুসন্তান উদ্ধার করেন। এ সময় কবিরকে আটক করে পুলিশ। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ জোবেদা বেগমকে আটক করে।জামালগঞ্জ থানার এসআই মোশারফ হোসেন বলেন, শিশু রাফসানকে মূলত অ পহরণ করা হয়েছিল। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করা হয়েছে।